আমাদের দেশে সেলাই মেশিনের বাজার বেশ ছোট। তবে দিনে দিনে এর চাহিদা বাড়ছে। সবাই চায় বাসায় একটা সেলাই মেশিন থাকুক। তাহলে আর টুকিটাকি কাজের জন্য দর্জি বাড়ি গিয়ে ধর্না দিতে হবে না। আবার কিছু টাকাও বাচবে। আবার যারা বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে সেলাই মেশিন কিনছেন তারা বাসায় বসেই প্রতি মাসে ১৫-২০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করছেন। তবে সেলাই মেশিনের চাহিদা বাড়াছে প্রতি বছর। প্রতি বছর প্রায় ১০-১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে এই চাহিদা। বাজারে বিভিন্ন রকম ও ধরনের সেলাই মেশিন রয়েছে। অনেকেই বুঝতে পারেন না কোন সেলাই মেশিন কিনবো, কোনটি ভালো। আবার আসল সেলাই মেশিন চিনবো কি করে? এই সব নানা প্রশ্নের জবাব দিতে বিডি সংসারের আজকের এই আয়োজন।

বাংলাদেশের বাজারে সিঙ্গার, বাটারফ্লাই, ফ্লাইং ম্যান, বার্ড ফ্লাই, ফ্লাইং ডপ, জেনারেল, সোয়ান, ট্রপিক্যাল ইত্যাদি মেশিন পাওয়া যায়। বাংলাদেশের বাজারে প্রতি বছরে প্রায় দুই লাখ সেলাই মেশিনের চাহিদা রয়েছে। প্রতিটি সেলাই মেশিনের গড় মূল্য চার হাজার ৫০০ থেকে ৯ হাজার টাকা। প্রতি বছর সিঙ্গারের ৮০ হাজার সেলাই মেশিন বিক্রি হয়ে থাকে। আর বাটার ফ্লাই এর ৬০ হাজারের মতন সেলাই মেশিন বিক্রি হয়ে থাকে।

সেলাই মেশিন সাধারণত ৩ ধরনের হয়ে থাকে । এগুলো হলো হাত মেশিন, পা মেশিন এবং জিগজাগ মেশিন। কভার ও স্যান্ডের গুঙ্গত মানের উপর মেশিনের দামের পার্থক্য হয়ে থাকে। পায়ের মেশিনের স্ট্যান্ডের দাম নির্ধারন করা হয়ে থাকে ওজনের ওপর। একটি স্ট্যান্ডের ওজন ১০ কেজি থেকে ১৮ কেজি হতে পারে।

তাহলে কোন সেলাই মেশিন ভালো?
বাজারে বর্তমানে অনেক রকম মেশিন রয়েছে তবে এগুলোর মধ্যে সিঙ্গার ও বাটারফ্লাই মেশিন সব থেকে ভালো। সিঙ্গার মেশিনের দাম একটু বেশি হলেও মানে ভালো। অপর দিকে দাম অনুযায়ী বাটারফ্লাই এর মানও খুব ভালো।

আর স্ট্যান্ড কেনার সময় অবশ্যই ওজন বেশি দেখে কিনবেন। তবে সিঙ্গার মেশিনের ওরিজিনাল মেশিনের স্ট্যান্ড সব থেকে ভালো। ফিনিশিং খুব ভালো থাকে এটার। দাম একটু বেশি হলেও চেস্টা করবেন এটা কিনতে।

কেমন দাম?
একটি সিঙ্গার মেশিনের বর্তমান দাম - ৭০০০-৭৫০০টাকা
একটি বাটারফ্লাই মেশিনের দাম - ৬০০০-৬৫০০ টাকা।