দধি কার না পছন্দ? ছোট বড় সবাই চেটে পুটে খায়, বিশেষ কোন অনুষ্ঠানে দধি না হলেই যেন খাওয়া পরিপূর্ন হয় না। তবে আমরা যারা বাজারের দধি কিনে খাই তারা জানি বাজারের দধিতে অনেক সময় নানা রকম ভেজাল মিশ্রিত থাকে। এই সুস্বাদু পদ যদি বাসায় তৈরি করা যায় তাহলে কেমন হয় বলেন তো? হা দধি তৈরি করা কিন্তু তেমন কঠিন কিছু নয়। প্রয়োজন ধর্য্য ও চর্চা। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে আসুন দেখে নেই কিভাবে বাসায় তৈরি করবেন মজার দধি। 

উপকরন 

তরল দুধ – ৭৫০ মিলি, চিনি- সাড়ে সাত টেবিল চামচ, পানি- ১/৪ কাপ, টাটকা দই বা দধির বীজ- হাফ কাপ

প্রস্তুত প্রণালী

একটা গরম প্যানে দুধটা ঢালুন। এরপর এটা ফুটিয়ে অর্ধেক করে দিন। অন্যদিকে অন্য একটা প্যানে চিনিটা দিন। হালকা আঁচে নাড়তে থাকুন। এই নাড়াচাড়া করার মধ্যে মাঝে মাঝে গ্যাসটা (চুলা) বন্ধ করুন, আবার চালান। যাতে চিনিটা নিচে না ধরে যায়। বারবার এরকম করতে করতে এক সময় দেখবেন চিনিটা পুরো গলে গেছে এবং একটা হালকা বাদামি রঙ হবে। এবার আগুনটা পুরো বন্ধ করে পানি দিন। ভাল করে মিশিয়ে একপাশে রেখে দিন। দুধটা অর্ধেক হয়ে গেলে, এবার এতে এই চিনির শিরাটা ঢেলে দিন। ভাল করে মিশিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। ঠাণ্ডা হতে দিন। মোটামুটি উষ্ণ গরম অবস্থায় এলে দেখুন। এবার টাটকা টক দইটা এর মধ্যে দিয়ে মেশান। পরিবেশনের জন্য কেনা ছোট মাটির মটকায় এটা এবার ঢেলে নিন। এবার এই মাটির মটকাগুলো অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে মুড়িয়ে দিন। ১০-১২ ঘন্টার জন্য ফ্রিজে রাখুন। পরিবেশনের আগে ফয়েল সরিয়ে ওপরে কুচনো বাদাম দিয়ে সাজিয়ে দিন।

টিপস 

১.টাটকা দই ব্যবহার করবেন। পুরনো খুব বেশি টক দই নয়।

২.আগুনটাকে খেয়াল করে বন্ধ করুন, আবার চালান। চিনি যেন নিচে ধরে না যায়।

৩.দইটা খুব ভাল করে মেশাবেন। দেখবেন যেন ভেতরে দলা না পাকিয়ে যায়।