কর্মজীবী আপুদের একই সাথে কর্মক্ষেত্রে ও সংসার সামলাতে হয়। তাই অনেক সময় হিমসিম খেতে হয়। প্রতিটি দিন কর্মজীবী নারীর জন্য অনেক ক্লান্তিকর। বিশেষ করে মশলা বাটা, ম্যারিনেট করা, ভাজা এগুলো। তবে ছুটির দিনে যদি বিশেষ কিছু কাজ করে রাখা যায় তাহলে সারা সপ্তাহ বাড়তি কিছু সময় দিতে পারবেন আপনার পরিবারকে, সাথে আপনার ক্লান্তি একটু হলেও কমবে। তাহলে আসুন দেখ নেই সেই সকল টিপস।

  • এই সপ্তাহে কোন দিন কি করবেন সেটা হিসেব করে বাজার করতে পারে। পুরো সপ্তাহ না হলে ২-৩ দিনের রান্না করেই রাখতে পারেন।
  • মাছ মাংস কেটে ধুয়ে যে পরিমানে রান্না করবেন তা আলাদা করে প্যাকেট করে রাখুন। আগামী ২-৩ দিনে যে মাংস রান্না করবেন, তা কষিয়ে ছোট ছোট বক্সে রেখে দিন
  • রান্নায় সব সময় গরম পানি ব্যবহার করবেন। তাতে খাবারের স্বাদ বাড়ার সাথে সাথে রান্না হবে দ্রুত।
  • রান্নাঘরে সকল মসলা, চাল, ডালের কৌটার গায়ে লেবেল লাগিয়ে দিন, দ্রুত খুজে পাবেন।
  • ২-৩ দিনের সকল সবজি আগেই কেটে এয়ার টাইট বক্সে ভরে ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন। একই উপায়ে পেঁয়াজ ও কেটে রাখতে প্রেন। তবে ধনে পাতার গোড়া ও কাচামরিচের বোটা কেটে ধুয়ে ফেলুন।
  • আদা, রসুন ও বেয়াজ বেশি করে কেটে ব্লেন্ড করে ফেলুন। এর পর এতে সামান্য লবন মিশিয়ে ১ সপ্তাহের জন্য ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন
  • বাচ্চার টিফিন ও অতিথি আপ্যায়নের জন্য সিঙ্গাড়া, সমুচা বা বার্গারের টিক্কা আগেই তৈরি করে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন। যখন দরকার হবে বের করে দ্রুত ভেজে পরিবেশন করুন।
  • বাসায় সব সময় তেতুল, টমেটো বা চিলি সস রাখুন। এগুলো দ্রুত রান্না করার জন্য খুব কাজে দেয়।
  • যদি রুটি খেয়ে থাকেন তাহলে ডো তৈরি করে ২-৩ রেখে দিন। সংরক্ষণ এর জন্য এয়ার টাইট বক্স বা প্যাকেট ব্যবহার করুন।