আসছে ঈদ। খুশির এই দিনে সাবার বাড়িতে তৈরি হয় নানা রকম মজাদার খাবার। তবে যারা নতুন গিন্নী বা নতুন বিয়ে হয়েছে তাদের জন্য অনেক সময় সমস্যার হয়ে থাকে। কারণ নানা রকম খাবার রান্না করতে হয়। আবার অনেকে সঠিক রেসিপিও জানেন না। তাদের জন্য বিডি সংসার নিয়ে এলো রেসিপি। তাহলে আর দেরী কেন আসুন দেখি মজার সব রেসিপি।

শাহী জর্দা রেসিপি
জর্দা তৈরির করার জন্য যা যা লাগবে - বাসমতি চাল ২ কাপ, ঘি আন্দাজমত, চিনি ৩ কাপ, লং, দারচিনি, এলাচ ৪/৫টি করে, কমলার টুকরা বা আনারস এর মোরব্বা - আন্দাজমত, জর্দার রঙ।

ঝরঝরে জর্দা তৈরি করার রেসিপি - প্রথমে একটি পাতিলে বেশি পানি দিয়ে চুলায় জ্বাল দিন। চাল ফুটে উঠলে ভালো করে ধুয়ে রাখা চাল দিয়ে দিন। চাল ফোটা শুরু করার সাথে সাথে এতে ফুড কালার দিয়ে দিন। চাল সিদ্ধ হওয়ার সাথে সাথেই চাল ঝাঁঝরিতে দিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। মনে রাখবেন চাল বেশি নরম হবে না। আবার বেশি শক্ত ও হবে না। এবার অন্য একটি পাত্রে ঘি দিয়ে দারচিনি এলাচ ও লবঙ্গ দিয়ে দিন। কিছু সময় পর চিনি দিয়ে দিন। চিনি গলে গেলে ভাত, কমলার টুকরা ও মোরব্বা দিয়ে চুলার আচ কমিয়ে ঢেকে দিন। আধা ঘন্টা পর সব নেড়েচেড়ে মিশিয়ে নিন। আবার আধা ঘন্টা পর চুলা থেকে নামিয়ে ডিশে ঢেলে পরিবেশন করুন।

চিকেন সাসলিক তৈরির উপকরণ

২৫০ গ্রাম কিউব করা হাড় ছাড়া মুরগীর মাংস, ২টি ক্যাপসিকাম, পেঁয়াজ কিউব ৮ টুকরা, রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ, ১ টেবিল চামচ পেঁয়াজ বাটা, ১ চা চামচ আদা বাটা, ১ চা চামচ সয়া সস, ২ টেবিল চামচ টমেটো সস, ১ টেবিল চামচ সরিষার তেল, স্বাদ মত লবন, ১ চা চামচ গোল মরিচের গুড়া।

চিকেন সাসলিক তৈরির প্রনালী
মুররীর মাংসে ম্যারিনেশনের সকল উপাদান মাখিয়ে সারা রাত ফ্রিজে রেখে দিন। সময় কম থাকলে ২ ঘন্টা অন্তত ম্যারিনেট এর জন্য রেখে দিন। পানিতে ভিজিয়ে রাখা কাবাবের কাঠিতে এক এক করে মুরগীর মাংস, ক্য্যাপসিকাম ও পেঁয়াজের টুকরা গাথুন। এভাবে কয়েক্কটি সাসলিক তৈরি করে নিন। ওভেনে ২২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ২০ মিনিট গ্রিল করে নিন। তাওয়াতেও সোনালী আঁচে ভেজে নিতে পারেন। ২০ মিনিট পর নান রুটির সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন চিকেন সাসলিক।

কালো জাম

কালো জাম তৈরি করতে যে সব উপকরণ লাগবে -

গুঁড়া দুধ– ১ কাপ, সুজি– ২ টে চামচ, ময়দা– ১ চা চামচ, বেকিং পাউডার– ১/২ চা চামচ, ডিম– ১ টি, লিকুইড দুধ– প্রয়োজনমতো, রেড ফুড কালারিং– কয়েক ফোঁটা, তেল– ভাজার জন্যে,

সিরার জন্যেঃ চিনি– ২ কাপ, পানি– ২ কাপ, এলাচ– ৪-৫টি, লেবুর রস– ১ চা চামচ,

চিনি ও পানি অল্প আঁচে জ্বাল দিয়ে সিরা তৈরি করে আলাদা একটি বাটিতে রেখে দিন।

গুড়ো দুধ দিয়ে মিষ্টি তৈরি করার প্রনালী

প্রথমে গুড়ো দুধ, সুজি ও বেকিং পাউডার ভালভাবে মিশিয়ে নিন। এবার ফেটানো ডিল ও ফুড কালার দিয়ে দিন। সব কিছু ভালোভাবে মিশিয়ে ডো তৈরি করে নিন। প্রয়োজনে সামান্য তরল দুধ দিতে পারেন। ডো একটু নরম ও আঠালো হবে। কারণ সুজির জন্য ডো ড্রাই হয়ে যায়। ডো ঢাকনা দিয়ে ৩০ মিনিট এর জন্য ঢেকে রেখে দিন। ৩০ মিনিট পর দেখবেন ডো শক্ত হয়ে গেছে। বেশি শক্ত হলে আবার লিকুইড দুধ দিয়ে দিন। এবার ছোট ছোট বল বানিয়ে মৃদু আঁচে ভেজে নিন। ভাজা হয়ে গেলে সিরায় ৫-৭ মিনিট জ্বাল দিয়ে লেবুর রস মিশিয়ে চুলা নিভিয় ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে পরিবেশন করুন।

মোরগ মোন্তাজান

উপকরনঃ
– মোরগ, দেড় কেজি, পিছ কেমন করবেন তা আপনি নিজেই ঠিক করতে পারেন
– টক দই, দেড় কাপ, মোরগের মাংস ভিজিয়ে রাখার জন্য
– পেঁয়াজ কুঁচি, হাফ কাপ

– আদা বাটা, ১ টেবিল চামচ
– রসুন বাটা, ১ টেবিল চামচ
– বাদাম বাটা, ৪ টেবিল চামচ
– ধনিয়া বাটা, ১ চা চামচ
– জিরা বাটা, ১ চা চামচ
– লাল মরিচ গুড়া, দেড় চা চামচ (ঝাল বুঝে, ঝাল কম খেলে কম দিতে হবে)

– পোস্তা দানা বাটা, হাফ চা চামচ
– জয়ত্রী বাটা, হাফের কম চা চামচ
– দারুচিনি বাটা, হাফ ইঞ্চি ৪/৫টা
– এলাচি বাটা, ৪/৫ টা
(পোস্তা, জয়ত্রী, দারুচিনি, এলাচি কে সামান্য ভেঁজে বেঁটে ফেলা যায়, এতে ঘ্রান আরো বেড়ে যাবে)

– কাঁচা মরিচ, কয়েকটা
– লবন (পরিমান মত)
– তেল, সয়াবিন হাফ কাপের কিছু বেশী
– পানি, এক কাপ (যদি লাগে)
অফশনাল (ইচ্ছা হলে দিতে পারেন)
– আলু বোখারা, কয়েকটা
– কিসমিস, গোটা দশ/বারটা

প্রনালীঃ
*মোরগের মাংসকে টক দইতে কিছুক্ষন ভিজিয়ে রাখুন।

*কড়াইতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুঁচি হাফ চা চামচ লবন যোগে ভাঁজুন।
*পেঁয়াজের রং হলদে হয়ে গেলে এবার সমস্ত মশলা/ভেজষ (উপরের পরিমান মত) কড়াইতে দিয়ে দিন।
*মশলা ও ভেজষ ভেঁজে এমন করে তেল উঠিয়ে নিন। এখানে ধৈর্য দেখাতে হবে। সমস্ত মশলা যেন একটা ভিন্ন ঘ্রানে চলে আসে।
*এবার টক দইতে ভিজিয়ে রাখা মাংস গুলো দই সহ দিয়ে দিন। ভাল করে মিশিয়ে নিন।

*আরো হাফ কাপ পানি দিতে পারেন এবং এবার ঢাকনা দিয়ে মাধ্যম আঁচে মিনিট ২০/২৫ রেখে দিন। মাঝে দুই একবার নাড়িয়ে দিতে ভুলবেন না।
*মাংস নরম হল কিনা দেখে নিন। (এই পর্যায়ে কয়েকটা আলু বোখারা এবং কিছু কিসমিস দিতে পারেন, কয়েকটা কাঁচা মরিচ দিতে ভুলবেন না।
*ফাইন্যাল লবন দেখুন, লাগলে দিন, না লাগলে ওকে। ঝোল কমিয়ে নিতে আগুনের আঁচ বাড়িয়ে দিন। গা গা ঝোল হলে আগুন নিবিয়ে দিন।

চিকেন রোস্ট

চিকেন রোষ্ট বানাতে যা যা লাগছে
✿ মুরগি- ৪টি
✿ লবণ- ১ চা-চামচ
✿ ভিনেগার- ১ টে চামচ
✿ ফুড কালার- সামান্য
✿ পোস্ত বাটা- ১/২ টে চামচ
✿ রসুন বাটা- ২ টে চামচ
✿ আদা বাটা- ১/২ টে চামচ
✿ জয়ত্রী ও জায়ফল বাটা- ১/২ টে চামচ করে
✿ পেস্তাবাদাম বাটা- ১ টে চামচ
✿ শাহজিরা বাটা- ১ টে চামচ
✿ গোলমরিচের গুঁড়া- ১/২ টে চামচ
✿ টক দই- ৩ কাপ
✿পিয়াজ বাটা- আধা কাপ
✿লবণ- পরিমাণমতো
✿তেল – ২ টে চামচ
✿ঘি – ১/২ কাপ
✿চিনি- সাদমতো
✿বেরেস্তা- ১/২ কাপ
✿কাঁচামরিচ- পরিমাণমতো

চিকেন রোষ্ট রন্ধন প্রণালী
মুরগি রোস্টের মতো টুকরা করে ভিনেগার ও লবণ দিয়ে ২০ মিনিট মেরিনেড করে রাখতে হবে। এরপর তেল গরম করে তাতে মুরগির মাংসগুলো হালকা বাদামি করে ভেজে নিতে হবে। আরেকটি পাত্রে ঘি অল্প আঁচে গরম করে তাতে আদা বাটা, রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা, পোস্তবাটা , পেস্তাবাদাম বাটা, জায়ফল ও জয়ত্রী এবং সামান্য খাবারের রং দিয়ে অল্প পানি দিয়ে কষিয়ে নিতে হবে। এবার ভাজা মুরগির মাংসগুলো এই কষানো মসলার মিশ্রণে ঢেলে দিতে হবে। এ সময় আরেকটু লবণ, টক দই ও চিনি দিয়ে দিতে হবে। ভালোভাবে কষানো হলে পরিমানমতো পানি,শাহ জিরা,বেরেস্তা ও কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে দিন।
ঝোল শুকিয়ে ভুনা হলে নামিয়ে উপরে বেরেস্তা ছড়িয়ে গরম পোলাউয়ের সাথে পরিবেশন করুন।