বাসায় বানিয়ে কেক খাওয়ার মজাই আলাদা। এটা যেমন স্বাস্থ্যসম্মত তেমন খেতেও মজা। তবে অনেকের বাসায় ওভেন না থাকাতে অনেকেই কেক তৈরি করে খেতে পারেন না। আবার অনেকে ইউটিউব দেখে ট্রাই করেন চুলায় কেক তৈরি করার। তবে এক দু বার ট্রাই করে না হলে হতাশ হয়ে বলে ফেলেন চুলায় ভালো কেক হয় না। আমি বলবো এটা সম্পূর্ন ভুল কথা। তার প্রমান দিতে আজ আমি নিজে তৈরি করেছি চুলায় কেক। তবে বলে রাখি প্রথমেই ধৈর্য্য হারালে চলবে না। কারন আমার নিজেরও পার্ফেক্ট কেক তৈরি করতে ৩বার লেগেছে। আপনাদের সাথে শেয়ার করছি সেই অভিজ্ঞতা। 

১ম বারঃ লবন দিয়ে হাড়িতে বাটি বসিয়ে ট্রাই করলাম, অনেক সময় ধরে ট্রাই করার পরেও দেখলাম কেক কাঁচা থেকে গেছে তখন পাতিলের ভিতরে রাখা স্ট্যান্ডটি সরিয়ে সরাসরি বাটি লবনের উপর বসালাম। তাতে হলো কি নিচে পুড়ে গেলো আর উপরে কাঁচা থেকে গেলো।

২য় বারঃ এবার আমি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, আবার চেস্টা করলাম। তবে একটু ভিন্ন ভাবে। সব কিছু ঠিক থাকলেও ঢাকনাটা ঠিক ঠাক না বসায় ও চুলার ফ্লেম কমিয়ে দেওয়ার কারনে অনেক সময় লাগে, পরে আমি কেক উল্টিয়ে দিয়ে বেক করি। তবে এতেও মন মতন হলো না।

৩য় বারঃ এবার একটু ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করলাম। হাড়ির নিচে আর লবন দিলাম না। এবার সরাসরি স্ট্যান্ড বসালাম। উপরে কেকের বাটি দিয়ে কাচের ঢাকনা দিয়ে ভালো করে ঢেকে দিলাম। বাহ এবার ১৫-২০ মিনিট পর থেকেই দেখলাম কেক ফুলতে শুরু করেছে। চুলার আঁচ মাঝারি রাখলাম আগা গোড়া। মাত্র ৪৫ মিনিটেই তৈরি হয়ে গেলো পার্ফেক্ট কেক। নিচে আমার কেক তৈরি করার রেসিপি শেয়ার করলাম। 

চুলায় কেক তৈরি করতে যা যা লাগবে - মাখন বা তেল হাফ কাপ, চিনি হাফ কাপ, ডিম ২টি, ময়দা এক কাপ, বেকিং পাউডার এক টি স্পুন, গুড়ো দুধ দুই টেবিল চামচ, ভ্যানিলা এসেন্স এক টি স্পুন, কিসমিস, মোরব্বা ও বাদাম।

চুলায় কেক তৈরি করার প্রনালী - 
ময়দার সাথে বেকিং পাউডার মিশিয়ে চালুনি দিয়ে চেলে নিন। একটি বাটিতে ডিম ভেঙ্গে কুসুম আলাদা করে নিন। ডিমের সাদা অংশ এগ বিটার দিয়ে বা হ্যান্ড বিটার দিয়ে ভালো করে বিট করে ফোম তৈরি করুন। হ্যান্ড বিটার দিয়ে করলে অনেক সময় ধরে ফেটতে হবে। এবার এতে কুসুম, তেল ও চিনি দিয়ে আরও ভালো ভাবে বিট করুন। তার পর ভ্যানিলা ফ্লেভার ও গুড়ো দুধ দিয়ে তার সাথে ময়দা দিয়ে দিন।

এবার ময়দা সহ এই মিশ্রণ ভালোভাবে নাড়ুন। আর মনে রাখতে হবে যে দিকেই নাড়ুন একদিকে নাড়বেন, আর বিটার ব্যবহার করবেন না। এক দিকে না নাড়লে ফোম বসে যাবে, কেক ফুলবে না। এবার এতে কিসমিস ও বাদাম দিয়ে দিন। এবার চুলায় দেওয়ার জন্য বেকিং পাত্রে মিশ্রণ ঢেলে দিন। পাত্রের গায়ে মাখন মাখিয়ে দেবেন, তাহলে কেক বের করতে সুবিধা হবে।

56415711_803922026638897_2573310950815825920_n
চুলার ভিতরে পাতিল রাখার স্ট্যান্ড দিয়ে দিন

 এমন একটি হাড়ি নির্বাচন করুন যাতে আপনার হাড়ির ভিতর কেক এর পাত্র ভালো ভাবে বসে যায়।

56453023_426920714741224_483410453339308032_n
কাচের ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন

 ঢাকনার ছিদ্রটি এভাবে বন্ধ করে দিন। তাতে ভাপে ভালো সেদ্ধ হবে।

56573490_827231030960473_6623208598317039616_n
৪০-৪৫ মিনিটে পার্ফেক্ট কেক...

তাহলে দেখলেন তো কিভাবে সহজে চুলায় তুলতুলে কেক তৈরি করলাম, আপনারাও বাসায় ট্রাই করবেন, আর কোন সমস্যা হলে কমেন্টবক্সে জানাবেন। 

ছবির জন্য দুঃক্ষিত...