নারকেল দুধ যেকোন খাবারের স্বাদ অনেক বাড়িয়ে দেয়। নারকেল দুধে হাসের মাংস, বা ডিম ভুনা অথবা মালাই কারি, যাই বলেন না কেন এগুলোর স্বাদ এক কথায় অসাধারন। তবে আজ এই সব আইটেম আপনাদের সাথে শেয়ার করবো না। আপনাদের সাথে নারকেল দুধের অন্য রকম একটি রেসিপি শেয়ার করবো। যেকোন বড় মাছ দিয়েই এই পদটি করতে পারেন। 

উপকরন

  • রুই মাছ- ৭/৮ টুকরা
  • পেয়াজ বাটা -১ কাপ
  • আদা বাটা -১/২ চা চামচ
  • রসুন বাটা -১ চা চামচ
  • নারিকের ঘন দুধ -১/২ কাপ
  • সরিষা বাটা/পাউডার -১ চা চামচ
  • হলুদ গুড়া -১/২ চা চামচ
  • মরিচ গুড়া -১ চা চামচ
  • ধনে জিরা গুড়া- ১ চা চামচ
  • গরম মশলা গুড়া- ১/২ চা চামচ
  • আস্ত জিরা -১/৪ চা চামচ
  • মেথি -১ চিমটি( না চাইলে দেওয়ার দরকার নেই)
  • আস্ত কাঁচা মরিচ-৫/৬ টি
  • লবন স্বাদ মত
  • চিনি সামান্য
  • সরিষার তেল -১/২ কাপ বা পরিমান মত

প্রণালী

প্রথমে আচজ গুলো ভালো করে ধুয়ে সামান্য লবন ও হলুদ মাখিয়ে নিন।

এবার তেল গরম করে নিন।

হালকা ভেজে নিন। এবার এই একই পাত্রে তেলের সাথে এক চিমটী চিরা ও মেথি ফোড়ন দিয়ে দিন।

এবার একে একে দিয়ে দিন পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা।

মধ্যম আঁচে কষিয়ে নিন। 

এবার মরিচ, হলুদ, ধনে-জিরা, গরম মসলা ও লবন, সরিষা বাটা দিয়ে আরও কিছু সময় কষিয়ে নিন। 

তবে খেয়াল রাখতে হবে কাঁচা সরিষার স্বাদ যেন না থাকে। 

এবার দিয়ে দিন পরিয়ান মতন পানি। 

এতে বলক আসলে নারকেলের দুধ দিতে হবে।

কিছুক্ষণ পর মাছ গুলো দিয়ে দিন। ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। 

ঝোল অর্ধেক হয়ে এলে সামান্য চিনি ও কাচা মরিচ ফেড়ে দিয়ে দিন। 

ঝোল মাখোমাখো হয়ে নামিয়ে নিন।

গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন।