ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪ আপডেট প্রায় ১ মাস আগে

জনপ্রিয়

রুপচর্চায় গোলাপ জলের ব্যবহার

ডেস্ক ২৪ মে ২০১৮ ১২:০০ ঘটিকা ৪৪

রুপচর্চায় গোলাপজলের ব্যবহার হয়ে আসছে প্রাচীন কাল থেকে। ত্বক ও চুল এর যত্নে এর কোন জুড়ি নেই। আজ বিডি সংসার এর রুপচর্চা সেগমেন্টে জেনে নেবো রুপচর্চায় গোলাপ জলের ১০টি ব্যবহার সম্পর্কে, তাহলে আসুন জেনে নেই গোলাপ জনের ব্যবহার

মুখে গোলাপ জল ছিটালে চেহারায় ফ্রেস ভাব আসে, মেকআপ করার পর গোলাপ জল ছিটালে মুখে গোলাপ জল ভালো ভাবে বসবে।

রুক্ষ চুলে গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের মিশ্রণ লাতিয়ে ১০-১৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন, গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের মিশ্রণ হবে সমপরিমানে। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিন। এতে আপনার চুলের রুক্ষ ভাব কমে আসবে।

সব ধরনের ত্বকের জন্য ভালো ফেসিয়াল ক্লিঞ্জারের কাজ করে থাকে রোজ ওয়াটার। প্রথমে হালকা ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন, এবার এক টেবিল চামচ রোজ ওয়াটারের সাথে কয়েক ফোটা ফ্লিসারিন মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে নিতে হবে।

চোখে ক্লান্তি ভাব আসলে, ফোলা ফোলা দেখালে তাতে এক টুকরো তুলা বরফ ঠান্ডা গোলাপ জলে ভিজিয়ে চোখের উপর ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এতে চোখের ফোলা ও লাল ভাব কমে আসবে।

শ্যাম্পু করার আগে এক কাপ রোজ ওয়াটার দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। এই গোলাপ জল ন্যাচারাল কন্ডিশনার হিসেবে খুব ভালো কাজ করবে ।

ত্বক পরিস্কার বা ফেশিয়াল টনার হিসেবেও গোলাপজল ভালো কাজ করে থাকে। ত্বক পরিস্কার করার পর ঠান্ডা গোলাপ জল পুরো মুখে লাগিয়ে নিন।

এক টেবিল চামচ গোলাপ জল ও এক টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে অ্যাকনের ওপর লাগিয়ে আধা ঘন্টা রেখে দিন। এবার পরিস্কার জলে মুখ ধুয়ে নিন। যে কোন ভালো ফেস প্যাক গোলাপ জলে গুলে মুখে লাগালে ভালো ফল পাওয়া যায়।

মেক আপ রিমুভার হিসেবে গোলাপ জলের কোন জুড়ি নেই। গোলাপ জলের মধ্যে কয়েক ফোটা নারিকেল তেল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ তুলোয় করে নিয়ে মেকআপ তুলুন। এই মিশ্রণ মেকআপ তোলার পাশাপাশি ত্বকে পুষ্টি যোগাবে।

ত্বকের ট্যান দূর করতে দুই টেবল চামচ ময়দা, পাতি লেবুর রস ও গোলাপ জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে ত্বকে লাগান, ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আমন্ড তেলের সাথে গোলাপ জল মিশিয়ে নিয়ে গোটা শরীর ময়শ্চারাইজ করুন। ত্বক যেমন ভাল থাকবে, তেমনই ক্লান্তিও দূর হবে।

আপনার জন্য নির্বাচিত »

লাইফস্টাইল থেকে আরও খবর »