ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ আপডেট প্রায় ১ মাস আগে

জনপ্রিয়

রমজান মাসে ওজন কমাতে ডায়েট চার্ট

ডেস্ক ১৬ মে ২০১৮ ১২:০০ ঘটিকা ৪০

আর ২ দিন পর শুরু হচ্ছে সিয়াম সাধনার মাস রমজান। এই মাস আত্ম শুদ্ধির পাশাপাশি হতে পারে শরীর শুদ্ধিরও। এই মাসে খাওয়াদাওয়ার জন্য প্রয়োজন একটু বাড়তি খেয়াল। এবার গরমের সময় রমজান মাস শুরু হওয়ার জন্য প্রায় ১৫ ঘন্টা না খেয়ে থাকতে হবে। অনেকেই ইফতারের সময় একটু বেশিই খেয়ে ফেলেন তাই মুটিয়ে যান সহজে। দেখা যায় সংযমের মাস হলেও অনেকেই এই এক মাসে কয়েক কেজি ওজন বাড়িয়ে ফেলছেন। কিন্তু একটি ডায়েট মেনে চললে এই এক মাসে ওজন তো বাড়বেই না আরও দেখবেন কমে গিয়েছে। জেনে নিন রমজান মাসের পার্ফেক্ট ডায়েট চার্ট

সেহেরি -
সেহেরিতে তেল,চর্বি যুক্ত খাবার ও লবন মশলা যুক্ত খাবার পরিহার করুন। এই সকল খাবার দেহের পানি সল্পতা প্রক্রিয়া বাড়িয়ে দেয়। ফল, দুধ বা টক দই, সেদ্ধ সবজি, সবজি স্যালাদ, অল্প পরিমান ভাত বা পাতলা রুটি খেতে পারে, সাথে ১-২ পিস মাছ বা এক পিস মুরগীর মাংস অথবা ডিম খেতে পারেন। মাছ বা মাংসের পরিবর্তে ডালও খেতে পারেন। আর পর্যাপ্ত পরিমানে পানি খেয়ে নেবেন।

ইফতার -

প্রথমে লেবু বা ডাবের পানি দিয়ে ইফতার শুরু করুন। আর্টিফিসিয়াল রং দেওয়া পানিয় এবং কোমল পানিয় পরিহার করুন। খেজুর এবং অন্যান্য ফল যেমন আম, শসা, গাজর, আপেল ইত্যাদি খেতে পারেন। সব ফল দিয়ে মিক্স স্যালাদ তৈরি করেও খেতে পারেন। প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ও মিনারেলস এর ঘাটতি দূর হবে।

৩০ মিনিট পর অল্প মুড়ি, ২টি পেঁয়াজু, ও ১টি বেগুনি খেতে পারেন, সাথে একটু ছোলা খেতে পারে। খাওয়ার পর পর পানি খাবেন না। খাওয়ার অন্তত ২০ মিনিট পর পানি পান করবেন। ভাজা পোড়া ত্যাগ করে চিড়া দই ও ফিল খেতে পারেন। সাথে কাবাব ও নান রুটি খেতে পারেন। 

রাতের খাবার -

ভাত বেশি না খেয়ে প্রচুর পরিমানে সবজি খান। রুটি খেতে পারলে আরও ভালো হয়। সাথে ১ পিস মাছ, বা মুরগী বা ১টা ডিম খেয়তে পারেন। রাতে ঘুমানোর আগে গরম দুধ বা লাচ্ছি খেতে পারেন। ইফতার ও সেহেরির মাঝে কমপক্ষে ৩-৫ লিটার পানি পান করবেন।

আপনার জন্য নির্বাচিত »

স্বাস্থ্য থেকে আরও খবর »