ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ আপডেট প্রায় ১ মাস আগে

জনপ্রিয়

মাজুফল কি? মাজুফলের উপকারিতা জেনে নিন

ডেস্ক ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১২:০০ ঘটিকা ৩০

স্বাগতম বিডি সংসার এর টিপস সেকশনে। বিডি সংসার প্রতিদিন নানা রকম টিপস নিয়ে হাজির হয়ে আসছে। ইদানিং রুপচর্চা ও রান্নাবান্না গ্রুপে মাজু ফল নিয়ে নানা রকম প্রশ্ন দেখা যাচ্ছে। অনেকেই যানতে চাচ্ছেন এটা কি? এর কাজ কি । উপকারিতাই বা কি? আসুন আমরা জেনে নেই এই মাজুফল সম্পর্কে ও মাজু ফল এর উপকারিতা সম্পর্কে।

মাজু ফল এর ইংরেজি নাম হচ্ছে gallnut বা marking nut । এটি মূলত একটি চাইনিজ ফল। গাছে হলেও এটি কিন্তু আসলে ফল না। এটি সাধারণত এক ধরনের পতঙ্গের কারনে হয়ে থাকে। গাল নামের এক ধরনের পতঙ্গের লার্ভা দিয়েই তৈরি। এটি ওক গাছে হয়ে থাকে। বিশ্বের ৯৫% মাজুফল চায়না থেকে আসে। তাই চাইনিজ মার্কেটে এটি বেশি পাওয়া যায়। ইদানিং বাংলাদেশেও এটি দেখা যাচ্ছে। চায়না থেকে আমদানী করেই এটা বাংলাদেশের বাজারে বিক্রি করছে। তাদের বেশির ভাগই অনলাইনে বিক্রি করছে। 

মাজুফল বা গাল নাট এর নানা রকম ব্যবহার রয়েছে। আসুন তার কিছু জেনে নেই। এটি একটি প্রাকৃতিক ঔষধি হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ফেসবুকে অনেকেই বলেন এটি ব্রেস্ট টাইটনিং এর কাজ করে। তবে এর কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি। তবে এন্টি এজিং এ এর নানা উপকারিতার কথা জানা যায়। তবে দাঁতের যত্নে, লিউকোরিয়ার সমস্যা, ভাঙ্গা হাড় জোড়ার কাজে ভালো কাজ করে থাকে। এতে রয়েছে গ্যালিক এসিড। যা আপনার রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করবে। মাজুফলের পেস্ট বানিয়ে ভাঙ্গা যায়গায় লাগিয়ে রাখলে দ্রুত হাড় জোড়া লাগে এমন তথ্যও ইন্টারনেটে পাওয়া যায়। 

বিমবিমা ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী ভ্যাজিনাল মাসল টাইট করার জন্যও এটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

মাজুফল ব্যবহারের নিয়ম

এই ফল এন্টি এজিং এ খুব ভালো কাজ করে থাকে। এই ফল ৫-৬টা গুড়া করে ২কাপ পানিতে সিদ্ধ করে নিন। সেই পেস্ট ঠান্ডা হলে মুখে ৫ মিনিট লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেললে তা আপনার ত্বক টানটান করতে সাহায্য করবে। এটি একটি এন্টি ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট। তাই ব্রণের থেকেও মুক্তি পেতে ব্যবহার করতে পারেন। 

oak-galls
গাল নাট বা ওক গাল

মাজুফল এর উপকারিতা কি?

মাজুফল ইন্ডাস্ট্রিতেও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এটি থেকে কালি তৈরি করা হয়। টেক্সটাইল ও লেদার শিল্পে এর ব্যবহার রয়েছে। 

মাজুফল কোথায় পাওয়া যায় ?

এটি একটি চাইনিজ ফল। তবে বাংলাদেশে অনেকেই এই ফল আমদানি করে বিক্রয় করছেন। 

মাজুফল এর অপকারিতা কি? 

প্রেগনেন্সি এর সময় এই ফল ব্যবহার করা উচিৎ নয়। কিডনি বা লিভারের সমস্যা থাকলে এই ফল ব্যবহার করবেন না। এইফল বার বার ও বেশি পরিমাএ ব্যবহার করবেন না। এটি ব্যবহার করলে কোষ্ঠকাঠিন্য এর সমস্যা হতে পারে। 

দৃষ্টি আকর্ষন- এই ফল বিক্রি করার জন্য বিজ্ঞাপন দাতারা নানা রকম লোভনীয় কথা বার্তার ব্যবহার করে। বিভিন্ন সমস্যার সমাধান হয় এই ফলে, তার ভিতর নানা রকম গোপন সমস্যা ও রয়েছে এমন কথাও বলা হয়ে থাকে। তবে না জেনে এগুলো ব্যবহার না করাই ভালো। তাই খোঁজ খবর নিয়ে জেনে বুঝে এটি কেনার জন্য অনুরোধ করছি। 

সূত্র - সাইন্স ডিরেক্ট ডট কম ও ইন্টারনেট 

আপনার জন্য নির্বাচিত »

লাইফস্টাইল থেকে আরও খবর »