ঢাকা সোমবার, ২৭ মে ২০২৪ আপডেট প্রায় ১ মাস আগে

জনপ্রিয়

১ সপ্তাহ এর জন্য রুটি বানিয়ে সংরক্ষন করার পদ্ধতি

ডেস্ক ১৬ অক্টোবর ২০১৮ ১২:০০ ঘটিকা ৩০

ক সাথে এক সপ্তাহ এর জন্য রুটি বানিয়ে রাখা যায়! হা ঠিক শুনছেন। পুরো সাত দিনের জন্য আপনি রুটি বানিয়ে রাখতে পারবেন। স্বাদ এ কোন পরিবর্তন হবে না। আবার প্রতিদিন আটা মাখানো ও বেলা থেকে পাবেন মুক্তি। আজ আপনাদের দেখাবো সেই ট্রিকস। কর্মজীবি আপুদের জন্য এই পদ্ধতি অনেক উপকারে আসবে আশা করি। তাহলে আর দেরি কেন আসুন দেখে নেওয়া যাক রুটি বানিয়ে ফ্রিজে রেখে সংরক্ষণ করবেন যেভাবে। আবার ভাজার আগে টাটকাই বা করবেন যেভাবে।

উপকরন - ময়দা/ আটা – পরিমান মত, পানি – পরিমান মত, তেল – পরিমান মত

প্রনালী - পানি ফুটিয়ে তাতে খুব সামান্য তেল দিয়ে দিন। এবার ময়দা দিয়ে সেদ্ধ করে ময়ান করে রুটি বেলে নিন। তারপর রুটিগুলিকে গরম তাওয়াতে এপাশ ঐপাস ছেকে নিন। এবার সবগুলি রুটিকে অল্প সময়ে পাতলা কাপড়ের উপর ছড়িয়ে ফ্যানের বাতাসে ঠান্ডা করে (একটার উপর কিচেন টিস্যু বা কাগজ জড়িয়ে তার উপর আরেকটা রাখবেন) বড় বাটিতে রেখে ভাল করে বাটির ঢাকনা লাগিয়ে দিন ও নরমাল ফ্রিজে রেখে দিন। বাজারে পার্চমেন্ট পেপার কিনতে পাওয়া যায়, টিস্যুর বদলে সেটিও ব্যবহার করতে পারেন। তবে ফ্রিজের ময়ান দেয়া আটা দিয়ে নরমাল রুটির চেয়ে পরোটা, নান রুটি বেশি ভালো হয়। তাই নাস্তায় ভিন্নতা আন্তে মাঝে মধ্যে এই সব প্রিপারেশনগুলোও ট্রাই করতে পারেন। প্রতিদিন রুটি বানানোর সময় একটু তেল দিলে ময়ানটা ভাল হয়।

*** মনে রাখবেন ময়ান ভাল হলে রুটি বানাতেও সুবিধা আর রুটিও সুন্দর নরম হয়। এবার রুটিগুলো কোনো কিছুর ওপর ছড়িয়ে ফ্যানের বাতাসে ঠাণ্ডা করে বড় বাটিতে রেখে ভালো করে বাটির ঢাকনা লাগিয়ে দিন ও নরমাল ফ্রিজে রেখে দিন। এবার যখন রুটি ভাজবেন তখন ফ্রিজ থেকে বের করে ভেজে গরম গরম পরিবেশন করুন।

আপনার জন্য নির্বাচিত »

রান্না-রেসিপি থেকে আরও খবর »