আমের আচার, জলপাই এর আচার, মরিচের আচার সহ নানা রকম আচার তো খেয়েছেন। তবে এই সব আচারের ভিতর আমার সব থেকে পছন্দের আচার হচ্ছে রসুনের আচার। শুধু খেতেই ভালো না যাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য এই আচার হতে পারে উপকারি। এছাড়া পুরুষের শক্তি বৃদ্ধি করতেও রসুনের জুড়ি নেই। আজ আপনাদের দেখাবো কিভাবে তৈরি করবেন রসুনের মজার আচার। খিচুড়ির সাথে এই আচার খেতে দারুন লাগবে।

রসুনের আচার তৈরি করতে যা যা লাগবে -
রসুন ১.৫-২ কেজি, সরিষাবাটা ১ কাপ, আদাবাটা ৩ টেবিল চামচ, পাচফোড়ন ৩ চামচ বা পরিমাণ মতো, হলুদ ও মরিচের পাউডার ১ চা চামচ করে, ভিনেগার বা লেবুর রস ২ কাপ, সরিষার তেল পরিমান মতো, চিনি প্রয়োজন মনে করলে, লবণ পরিমাণ মতো

রসুনের আচার তৈরির প্রনালী -

প্রথমে সরিষা, আদা বাটা ভিনেগার দিয়ে গুলিয়ে একটি পাত্রে রেখে দিতে হবে। ভিনেগারের বদলে লেবুর রস ও ব্যবহার করতে পারেন। এবার কড়াইতে সরিষার তেল দিয়ে গরম তেলে পাঁচ ফোড়ন দিয়ে দিন। এবার চুলার আচ কমিয়ে দিয়ে সরিষা বাটা, হলুদ ও মরিচ দিয়ে নাড়তে থাকুন। ভালোভাবে পেস্টটি মিশে গেলে রসুন গুলা ঢেলে দিয়ে আচ বাড়িয়ে নাড়তে থাকুন। তেল ও মসলা ফুটে আসলে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। রসুন সিদ্ধ হয়ে আসলে আচ কমিয়ে দিন। স্বাদ মতো চিনি ও লবণ দিয়ে দিন। মাঝে মাঝে নেড়ে দিন যাতে তেতে না যায়। ঝোল শুকিয়ে আসলে তেল ছেড়ে দিবে। তেল ছাড়ার ২ মিনিট পর নামিয়ে ফেলুন। এর পর আচার ঠান্ডা হলে কাচের পাত্রে আচার রেখে দিন। অনেক দিন আচার রাখতে চাইলে মাঝে মাঝে আচার রোদে দিবেন। এতে আচার ভালো থাকবে।